প্রাইজবন্ড ”ড্র” পুরুস্কারের মূল্যমান

প্রাইজবন্ডে প্রতি সিরিজের জন্য ৪৬টি পুরুস্কার রয়েছে, যার মূল্যমান ১৬ লাখ ২৫ হাজার টাকা। প্রথম পুরুস্কার একটি ৬ লাখ টাকা, দ্বিতীয় পুরুস্কার একটি ৩ লাখ ২৫ হাজার টাকা, তৃতীয় পুরুস্কার দুটি ১ লাখ টাকা করে, চতুর্থ পুরুস্কার দুটি ৫০ হাজার টাকা করে এবং পঞ্চম পুরুস্কার ৪০টি ১০ হাজার টাকা করে। বর্তমানে দেশে ৫৪ টি সিরিজ চালু আছে। প্রতিবার ”ড্র” জন্য ৫৪ টি সিরিজের জন্য সরকার মোট ৮ কোটি ৭৭ লাখ ৫০ হাজার টাকা বরাদ্ধ রাখে। জেতার পর মূল বন্ডসহ নির্ধারিত ফরমে আবেদন করলে সর্বোচ্চ দুই মাসের মধ্যে বিজয়ীকে পে-অর্ডার দেওয়া হয়। তবে পুরুস্কারের টাকার ওপর কর দিতে হয় ২০ শতাংশ।


সরকার কি প্রাইজবন্ডে কোন সুদ বা লভ্যাংশ দেয়?

সরকার প্রাইজবন্ডের উপড় সরাসরি কোন সুদ বা লভ্যাংশ দেয় না। লভ্যাংশের টাকা বিজয়দেরকে পুরুস্কার হিসাবে দেয়। প্রতিটি সিরিজের জন্য ড্র’ প্রতি ১৬,২৫,০০০/= (ষোল লাখ পঁচিশ হাজার টাকা) এবং বছরে ৬৫,০০,০০০/=(পঁয়ষট্টি লাখ টাকা) পুরুস্কার হিসাবে দেয়া হয়।

প্রতিটি সিরিজে মোট প্রাইজবন্ডের সংখ্যা ১০,০০,০০০/= (দশ লাখ) পিছ, যার বাজার মূল্য ১০,০০,০০,০০০/= (দশ কোটি টাকা)। ১০ কোটি টাকায় বছরে ৬৫ লাখ টাকা লভ্যাংশ দিলে সুদের হার দাড়ায় ৬.৫%, অর্থাৎ সরকার প্রাইজবন্ডে পরোক্ষভাবে ৬.৫% হরে লভ্যাংশ প্রদান করে।